করুণা ভাইরাসের মহামারী কেটে গেল বেশ কয়েক মাস আবার সবকিছু কাটিয়ে উঠতে এবং জীবনযাত্রা স্বাভাবিক হতে যদিও কিছুটা সময় লাগবে কিন্তু এরই মধ্যে একরকম চাঞ্চল্য ফিরে এসেছে সবকিছুতে সে ক্ষেত্রে ক্রিকেটাঙ্গনে আবারো ব্যস্ততা বেড়েছে শ্রীলংকার সাথে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সিরিজ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে তবে এ ব্যাপারে শ্রীলংকা কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করেছে

আগের সূচি অনুযায়ী আজ শ্রীলঙ্কার উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ার কথা ছিল টাইগারদের। কিন্তু সেই সফর এখনো ঝুলে আছে। এই সফর উপলক্ষে বিসিবি জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরু করলেও তিন দিনের ছুটি দেওয়া হয়েছে ক্রিকেটারদের। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) তাদের অবস্থানের কথা জানিয়েছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডকে (এসএলসি)। কিন্তু এসএলসি তাদের সিদ্ধান্ত এখনও বিসিবিকে জানায়নি। এদিকে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, আজই সিদ্ধান্ত হতে পারে।

আজ রবিবার রাজধানীর একটি হোটেলে জয়তু শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক অনলাইন দাবা টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, ’মহামারির এই সময়ে একটা সিরিজ হবে, এটা আমরা অনেক আগ্রহের সঙ্গে নিয়েছি। আমরা খুবই উদগ্রীব এবং আমাদের খেলোয়াড়রাও সিরিজের জন্য অনুশীলনের মধ্যে আছে। ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আমাদের সাবর্ক্ষণিক আলাপ-আলোচনা চলছে। তারা (শ্রীলঙ্কা) যে বিধিনিষেধ দিয়েছে তার প্রেক্ষিতে আমরা বলেছি, আমাদের যে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা তা কিছুটা কমানোর। পাশাপাশি হোটেল কক্ষে থাকার যে বিধিনিষেধ দেওয়া হয়েছে তার প্রেক্ষিতে আমরা ’না’ বলেছি।’

তিনি আরও বলেন, ’একজন খেলোয়াড় যদি ১৪ দিন রুমের মধ্যে বসে থাকে তাহলে ফিটনেসের ঘাটতি হবে। তাহলে সে খেলাধুলা কিছুই দেখাতে পারবে না। আমরা বলেছি, হোটেলের যে সুযোগ-সুবিধা আছে, জিম থেকে শুরু করে অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা সেটা আমরা যাতে ব্যবহার করতে পারি। তার জন্য যেন আমাদের সুযোগ দেওয়া হয়। আমাদের আজকে শ্রীলঙ্কা থেকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত পাওয়ার কথা। আমরা আশা করছি, এটা পেলে আজকে ক্রিকেট বোর্ড থেকে একটা মেসেজ পাবেন, আশা করছি আজকের মধ্যে।’

ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মনে করেন, শ্রীলঙ্কা যে বিধিমালা বেধে দিয়েছে সেটার অধীনে সফর করতে যাওয়া সম্ভব নয়, ’কোনোভাবেই এটা সম্ভব নয়। ১৪ দিন রুমের মধ্যে আটকা থাকা অসম্ভব। একটা খেলোয়াড়ের ফিটনেস হলো বড় বিষয়। রুমের মধ্যে বন্দি থাকলে কখনোই একজন খেলোয়াড়ের ফিটনেস ঠিক থাকবে না। আমরা বলেছি, হোটেল আমরা থাকতে পারি, কোয়ারেন্টিন সময়টা একটু কমিয়ে দেয়া হোক আর হোটেলের সুযোগ-সুবিধা জিম থেকে শুরু করে সুইংমিং এবং অন্যান্য সুযোগ যাতে আমাদের খেলোয়াড়দের দেওয়া হয়। এই বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য বলেছি। আশা করছি আজকের মধ্যেই আমরা একটা ভালো সিদ্ধান্ত পাব।’

করণা মহামারীর মধ্যে হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ শ্রীলংকা ম্যাচ এবং এই সিরিজ চালু হওয়ার আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাথে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের সর্বক্ষণিক আলাপ-আলোচনা চলছে এবং এরই মধ্যে শ্রীলংকা বাংলাদেশের জন্য কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করে দিয়েছে যার মধ্যে একটি হল খেলোয়াড়দের ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইন এ থাকতে হবে এবং পাশাপাশি হোটেল কক্ষে থাকার বিধিনিষেধ দেওয়া হয়েছে তবে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে রুমে আটকে থাকলে খেলোয়াড়দের ফিটনেস নষ্ট হবে

Sites