বাংলাদেশে এখন সর্বোচ্চ আলোচিত যে বিষয় সেটি হল সাবেক সেনা কর্মকর্তা মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদের না ফেরার দেশে চলে যাওয়া কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশ চেকপোস্ট এই ঘটনা ঘটার পর থেকে সারাদেশে শুরু হয়েছে তোলপাড় এবং শুধু সাধারণ মানুষের মধ্যে উদ্বেগ নেই বরং এটা ছড়িয়ে পড়েছে প্রশাসনের অনেক কর্মকর্তাদের মাঝেও এরইমধ্যে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সেনাবাহিনীর কর্মকর্তারা রয়েছেন তারাও তাদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে শুরু করেছেন


চলতি বছরের ২২ জুলাই রাতে উখিয়ার কুতুপালং গ্রামের বাসিন্দা ইউপি সদস্য বখতিয়ার আহমেদের বাড়িতে টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও উখিয়া থানার ওসি মর্জিনা আক্তারের নেতৃত্বে অভিযানে যায় একদল পুলিশ সদস্য।

অভিনব কায়দায় বাসা থেকে ডেকে নিয়ে দেওয়া হয় ইউপি সদস্য বখতিরাকে। বখতিয়ার ভাই, একটু বের হবেন? একজন মানুষকে শনাক্ত করতে হবে, আপনি চেনেন কি না।

গত ২২ জুলাই গভীর রাতে এভাবেই বাসার বাইরে ডেকে নেয়া হয় কক্সবাজারের কুতুপালং ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের তিনবারের মেম্বার বখতিয়ার উদ্দিনকে। টেকনাফ ও উখিয়া পুলিশের টিমকে নেতৃত্ব দেন দুই ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও মর্জিনা আক্তার।

রাত ৩টার দিকে বখতিয়ার মেম্বারকে পুলিশের গাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। পরদিন দেনদরবার করেও জানা যায়নি কোথায় আছেন তিনি। বিকেলে খবর আসে টেকনাফ থানায় রাখা হয়েছে তাকে।


এসব অভিযোগ বখতিয়ার মেম্বারের বড় ছেলে বোরহান উদ্দিনের । তাদের কাছে পুলিশের সেদিনের অভিযানের সিসিটিভি ফুটেজ আছে উল্লেখ করে বোরহান জানান, এখন তারা পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

বাংলাদেশের চলমান পরিস্থিতির মধ্যে একের পর এক হতে চলেছে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গত মাসের শেষ দিনটিতে ভয়াবহ ঘটনা সেখানে সাবেক সেনা বাহিনীর কর্মকর্তা মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ নিহত হয়েছে জানা যায় একটি ভ্রমণ বিষয়ক ডকুমেন্টারি তৈরি করতে তিনি কাজ করছিলেন এবং ওই শুটিং শেষ করে যখন রাতে ফিরছিলেন তখন মেরিন ড্রাইভের চেকপোষ্টে পুলিশ দাঁড় করায় তাদের এরপর বিতণ্ডা এবং এই ঘটনার সূত্রপাত হয়

Sites