এবার সাংবাদিক ইলিয়াস হোসাইন এর ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ইউটিউব এর সকল প্রকার কনটেন্ট সরানোর ব্যাপারে ইউটিউব এর প্রধান নির্বাহীকে আইনি নোটিশ দিয়েছে বিমান বাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা ও একুশে টিভির সাবেক পরিচালক ডঃ জাহিদুল ইসলাম। মূলত ইউটিউব এ চ্যানেল এর ১৫ মিনিট নামক একটি অনুষ্ঠানে উপস্থাপনা করেন ইলিয়াস হোসাইন এবং সেখানে মিথ্যা এবং বানোয়াট তথ্য প্রচার করা হয় বলে তিনি অভিযোগ করেছেন যা সামাজিকভাবে মানহানির ঘটায়

আ/প//ত্তি/ক/র ভিডিও কনটেন্ট সম্প্রচারের অভিযোগ এনে মার্কিন অনলাইন ভিডিও-শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ইউটিউবের প্রধান নির্বাহীকে আইনি নোটিশ দিয়েছেন বিমানবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা ও একুশে টিভির সাবেক পরিচালক ড. জাহিদুল ইসলাম।

ইউটিউবে ’১৫ মিনিট’ অনুষ্ঠানে সাংবাদিক ইলিয়াস হোসাইন তার বিরুদ্ধে আ/প/ত্তি/ক/র ভিডিও প্রচারের অভিযোগ এনে এ নোটিশ দেওয়া হয়। ৩০ দিনের মধ্যে এ বিষয়ে ব্যবস্থা না নিলে ৫০ লাখ ইউএস ডলারের ক্ষতিপূরণ চেয়ে মামলা করা হবে বলা হয়েছে।

সোমবার (১৬ নভেম্বর) জাহিদুল ইসলামের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সাফায়েত হোসেন সজিব আমেরিকায় ই্উটিউবের প্রধানের ঠিকানায় এ নোটিশ পাঠান।

পরে সাফায়েত হোসেন সজিব বলেন, ইউটিউব চ্যানেলে ’১৫ মিনিট’ এর উপস্থাপক ইলিয়াস হোসাইন ১২ সেপ্টেম্বর ড. জাহিদুল ইসলামকে নিয়ে উদ্দেশ্যেমূলক মিথ্যা, বানোয়াট ও আ/প/ত্তি/ক/র ভিডিও সম্প্রচার করে সামাজিকভাবে তার মানহানি ঘটায়। আব্দুস সালাম কুটির পক্ষাবলম্বন করে ভিডিও সম্প্রচার করে জাহিদুল ইসলামকে সামাজিকভাবে হেয়-প্রতিপন্ন করার দুরভিসন্ধি নিয়ে অপূরণীয় ক্ষতিসাধন করে। এর আনুমানিক মূল্য ৫০ লাখ ইউএস ডলার।

তিনি বলেন, এ নিউজ সম্প্রচারের প্রতিবাদ জানিয়ে ইউটিউবের সিইও বরাবরে ১৯ সেপ্টেম্বর ও ১৮ অক্টোবর দুটি চিঠি পাঠানো হলেও কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এ কারণে নোটিশ দেওয়া হয়।

নোটিশ প্রাপ্তির ৩০ দিনের মধ্যে ’১৫ মিনিট’ এর কার্যক্রম বন্ধ করাসহ সন্তোষজনক জবাব না পেলে ৫০ লাখ ইউএস ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা করা হবে।


এবার সাংবাদিক ইলিয়াস হোসাইন এর ফিফটিন মিনিটস নামক যে অনুষ্ঠানটি রয়েছে এবং ইউটিউবে তিনি এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে যেসব তথ্য সাধারণ মানুষকে প্রচার করেন সেগুলো মিথ্যা এবং বিভ্রান্তিকর সেগুলো সরানোর জন্য ইউটিউব এর নির্বাহী পরিচালক কে আইনি নোটিশ দিয়েছে একুশে টিভির সাবেক পরিচালক এবং আরো বলা হয়েছে তার বিরুদ্ধে ভিডিও প্রচারের অভিযোগে ৩০ দিনের মধ্যে ব্যবস্থা না নিলে ৫০ লাখ ইউএস ডলার ক্ষতিপূরণ চেয়ে মামলা করা হবে

Sites