পবিত্র আরাফাতের ময়দানে এখন ৩০ লাখেরও বেশি হাজী অবস্থান করছেন। তবে একজন মহিলা হাজী মহান আল্লাহ পাকের অশেষ রহমাত লাভ করে একটি পুত্র সন্তান প্রসব করেছেন। অথচ এই নারীর এই সময়ে মা হওয়ার কোন কথায় ছিল না। গর্ভবতী হাজী আরো বেশ কয়েকদিন পরে মা হওয়ার দিন ছিল। তবে আল্লাহ পাকের রহমতে কিছুটা অলৌকিকভাবে পবিত্র হজ পালন করতে এসে পাকিস্তানী ওই নারী সন্তানের জন্ম দিয়েছেন।

পবিত্র হজের প্রথম দিন মঙ্গলবার মিনা আল-ওয়াদি হাসপাতালে শিশুটির জন্ম হয় বলে হাসপাতালের পরিচালক মোহাম্মদ মালাইবারি জানিয়েছেন। মা ও শিশু সুস্থ আছে বলেও জানান তিনি।
এবারের হজে এই প্রথম মিনায় কোনো হাজি সন্তানের জন্ম দিলেন। শিশুটির নাম রাখা হয়েছে মোহাম্মদ আলী।

শিশুটির বাবা জানান, মিনায় পৌঁছানোর পরপরই তার স্ত্রীর প্রসব যন্ত্রণা শুরু হয়। সঙ্গে সঙ্গে তাকে মিনা আল-ওয়াদি হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। পবিত্র স্থানে সন্তানের জন্ম হওয়ায় খুশি ওই ব্যক্তি। তিনি হাসপাতালের কর্মীদের সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

মক্কার পবিত্র মসজিদুল হারাম থেকে প্রায় ৯ কিলোমিটার দূরে মিনায় অবস্থানের মধ্যদিয়ে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর থেকে পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। মিনা থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে আরাফাতের ময়দানে বুধবার ভোর থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত অবস্থান করবেন হজব্রতে অংশগ্রহণকারীরা। বৃহস্পতিবার কোরবানির মাধ্যমে শেষ হবে হজের আনুষ্ঠানিকতা।
এমটিনিউজ২৪/

Sites