বর্তমান সময়ে যে কয়েকজন মেধাবী সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক গান নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন তাদের মধ্যে সাইক উদ্দিন শান অন্যতম। তিনি নিয়মিত গানও করেন। সঙ্গীত পরিচালনা ও গান গাইলেও সুর করার বিষয়টা তিনি বেশ উপভোগ করেন। এই সময়ের একজন প্রতিভাবান আলোচিত সংগীত পরিচালক ও কন্ঠশিল্পী শান।রবীন্দ্র এবং নজরুল সংগীত এই দুটির ওপর তালিম নিলেও আধুনিক গানেই তিনি ছিলেন বেশি মনোযোগী

জনপ্রিয় সুরকার, সংগীত পরিচালক ও কণ্ঠশিল্পী শান আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে বললেন, ’মেয়ে দেখতে গিয়ে বিয়ে হয়ে হয়ে গেল।’ আর ২০০৬ সালের ’ক্লোজআপ ওয়ান তারকা’ সাব্বির জামান বলেন, ’শানের সঙ্গে আমার অনেক দিনের পরিচয়। সাত বছর তো হবেই। আমরা ভালো বন্ধু। তাঁর পরিবার নিয়ে এসেছে আমাদের সবার সঙ্গে পরিচিত হতে। একদম হুট করে, কথা বলতে বলতে, দুই পক্ষ রাজি, ব্যস আমার বোন স্নিগ্ধার সঙ্গে শানের বিয়ে হয়ে গেল।’

গতকাল বুধবার রাতে রাজধানীর ইস্কাটনে জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী সাব্বির জামানের বোন স্নিগ্ধার সঙ্গে শানের বিয়ে হয়েছে। সাব্বির আর শান দুজনই জানালেন, গতকালই এই বিয়ের ব্যাপারে দুই পরিবারের প্রথম কথা হয়। সবকিছু পছন্দ হওয়ায় শান আর স্নিগ্ধার আকদের সিদ্ধান্ত নেন পরিবারের সদস্যরা।


সাব্বির জামান বলেন, ’গত ৮ সেপ্টেম্বর আমার ছেলে ইদানের জন্মদিনের অনুষ্ঠান আয়োজন করেছিলাম মগবাজারের একটি রেস্তোরাঁয়। সেই অনুষ্ঠানে শান এসেছিলেন। সেখানেই আমার বোনের সঙ্গে তাঁর প্রথম দেখা হয়, কথা হয়। এরপর শানের বাবা-মা আমাদের বাসায় আসার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেন। আমার বাবা-মা থাকেন চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের চৌমুহনীতে। তাঁদের খবর দিই। তাঁরাও চলে আসেন। এরপর সবকিছু এত দ্রুত ঘটেছে যে আমি এখনো বিশ্বাস করতে পারছি না।’

শান ছোটবেলা থেকে গানের সঙ্গে আছেন। সেমি ক্ল্যাসিক্যাল গান চর্চা করেন। এ ছাড়া আধুনিক ও ফোক গান করেন। নিজে গিটার বাজান। আজ জানালেন, গত ছয় বছরে তাঁর নাকি ৪০০ গান বেরিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে তাঁর সুর ও সংগীত পরিচালনা করা গান, আরও আছে নিজের গাওয়া গান। তাঁর খুব জনপ্রিয় হওয়া গানের মধ্যে রয়েছে ’কন্যা’ ও ’সখী’; ফাহমিদা নবীর সঙ্গে ’সাদাকালো’ ও কোনালেন সঙ্গে ’তুমি নেই বলে’। তাঁর সুর করা আর নিশিতা বড়ুয়ার গাওয়া ’হিয়ার মাঝারে’ গানটিও খুব জনপ্রিয় হয়েছে।

গানের সঙ্গে শানের শুরুটা ১৯৯৭ সালে। ২০০০ সালে ব্যান্ড গড়েছিলেন, নাম ’ইমোশন’। ওই সময় সংগীতা থেকে ইমোশন ব্যান্ডের একটি অ্যালবাম বের হয়, নাম ’সঙ্গদোষ’। ২০০৩ থেকে ২০০৬ সালের মধ্যে এক ডজন ফোক রিমিক্স গান করেছেন। বললেন, ওই সময় এ ধরনের গানের বেশ জোয়ার ছিল। শানের প্রথম একক অ্যালবাম ’মুসাফির প্রেম’ বেরিয়েছে ২০০৭ সালে।

সাব্বির জামানের মা চট্টগ্রামে দীর্ঘদিন শিক্ষকতার সঙ্গে জড়িত আছেন আর বাবা ব্যবসায়ী। এমবিএ করার পর স্নিগ্ধা নিজেও চট্টগ্রামে একটি স্কুলে শিক্ষকতা করছেন।

শান জানালেন, এ বছর ডিসেম্বরে অথবা আগামী বছর জানুয়ারি মাসে তাঁদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান হবে।


উল্লেখ্য,২০০০ সালে শানের প্রথম ব্যান্ডের এ্যালবাম রিলিজ হয়। এরপর প্রথম সলো এ্যালবাম ’মুসাফির প্রেম’ বাজারে আসে ২০০৭ সালে ওশান মিউজিকের ব্যানারে। দ্বিতীয় সলো এ্যালবাম ২০১১ সালে লেজার ভিশনের ব্যানারে প্রকাশ পায়। এ ছাড়া শানের ’পুতুল শান যুগল শান’এ্যালবামটি বেশ জনপ্রিয়তা পায়।

Sites