বলিউডের জনপ্রিয় জুটি এবং বলিউড আদর্শ দম্পতি সাইফ আলী খান এবং কারিনা কাপুর খান। ২০১৬ সালের ২০ ডিসেম্বর বলিউড দম্পতি সাইফ আলি খান ও কারিনা কাপুর খানের ঘর আলো করে জন্ম নেয় তৈমুর। এরপর থেকেই সব মহলে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে এই স্টার কিড ছেলে তৈমুর আলী খান এরই মধ্যে সামাজিক মাধ্যমের তারকা হয়ে উঠেছেন। তৈমুর যাই করুক না কেন তা দেখতে পছন্দ করেন নেটিজেনরা।

তৈমুর সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনায় থাকে সব সময়। বাবা-মা তাকে সঙ্গে নিয়ে কোথায় যাচ্ছেন? কি করছেন? পাপারাতজিদের ক্যামেরায় ধরা পড়ে সব। মাঝে মধ্যেই এই বিষয়টি নিয়ে খুব বিরক্ত হন কারিনা।

তৈমুরের প্লে স্কুলে ভর্তি হওয়া, পতৌদি রাজপ্রসাদ, সব জায়গাতেই তৈমুরকে দেখলেই ছবি তুলতে থাকে পাপারাতজিরা। দেশে হোক কিংবা বিদেশে, সব জায়গাতেই তৈমুরের পিছে পিছে ঘোরে ক্যামেরা। সেই কারণেই এবার সাইফ, কারিনা এক বড় সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন।

শোনা যাচ্ছে ছেলে তৈমুরকে নাকি আর নিজেদের কাছে রাখবেন না সাইফ-কারিনা। সম্প্রতি কারিনা জানান, তৈমুরকে তারা বোর্ডিং স্কুলে ভর্তি করাবেন। তারা এখন ব্যস্ত থাকেন অনেক।

কখনও সিনেমার শুটিং, আবার কখনও বিজ্ঞাপন কিংবা রিয়েলিটি শো নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। তৈমুরকে তারা বেশি সময় দিতে পারছেন না। এসবের পাশাপাশি রয়েছে, তৈমুরকে নিয়ে সব সময় পাপারাতজির দৌড়।

অত্যধিক ক্যামেরার নজরদারি তৈমুরের শৈশব ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন সাইফ-কারিনা। এসবের জন্যই তারা তৈমুরকে বোর্ডিং স্কুলে দিতে চান।

উল্লেখ্য,সাইফ তার চেয়ে বয়সে ১০ বছরের ছোট বলিউডের অভিনেত্রী কারিনা কাপুর কে বিয়ে করেন। অমৃতা সিংয়ের সঙ্গে ১৩ বছর সংসার করার পর বিচ্ছেদ ঘটিয়ে পরবর্তী সময়ে বলিউডের প্রভাবশালী কাপুর পরিবারের মেয়ে ’হিরোইন’ তারকা কারিনার টানা পাঁচ বছর সাইফের সাথে চুটিয়ে প্রেম করেন। ২০১২ সালে তারা তারা বন্ধনে আবদ্ধ হন

Sites